থাইল্যান্ডে রাজতন্ত্রের সংস্কার এবং প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচা’র পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ দমনে গণজমায়েত নিষিদ্ধ করে জরুরি আদেশ জারি করেছে সরকার।

বুধবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া বিবৃতিতে থাই পুলিশ জানিয়েছে, সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা বিশৃঙ্খলা উস্কে দিয়েছে।

রাজধানীতে শান্তি এবং শৃঙ্খলা বজায় রাখতে জরুরি আদেশ জারি করা হয়েছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ভোর ৪টা থেকে জরুরি আদেশ কার্যকরের পর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। এসময় তিন বিক্ষোভকয়ারীকে আটক করা হয় বলে জানায় মানবাধিকার সংস্থাগুলো। আদেশ অনুযায়ী একসঙ্গে ৪ জনের বেশি মানুষ গণজমায়েত করতে পারবে না। এছাড়া জাতীয় নিরপত্তা এবং স্থিতিশীলতা বিঘ্ন করে এমন খবর প্রকাশেও গণমাধ্যমের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার, ব্যাংককে থাইল্যান্ডের রাজকীয় গাড়িবহর থামিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিক্ষোভকারীরা। গেল জুলাই মাস থেকেই থাইল্যান্ডে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ চলছে। ব্যাংককে শনিবারের বিক্ষোভে অংশ নেয় অন্তত ১৮ হাজার মানুষ|