করোনার মাঝেও হলোনা স্বস্তির ঈদ যাত্রা। মানুষের ঢল নেমেছে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে। কয়েক হাজার যানবাহন আটকা পড়ে থাকায় দেখা দেয় ২৫ কিলোমিটার ব্যাপী যানজট। আবার ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের মির্জাপুর থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত ৬৫ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় ঈদে ঘরমুখী মানুষ ও যাত্রীবাহী বাসের চাপ বেড়ে যায়। ফেরিতে আগে ওঠার প্রতিযোগিতায় রাত ২টার দিকে বিশৃঙ্খলার কারণে ফেরিঘাট এলাকায় রাস্তা আটকে যায়। মূলত এই আগে যাবার প্রতিযোগিতার কারণেই দীর্ঘ ২৫ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে যাত্রীদের ঘাট এলাকায় আটকে থাকতে হচ্ছে ১৪-১৫ ঘণ্টা পর্যন্ত।

এসিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের মির্জাপুরের গোড়াই থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত শুক্রবার ভোর থেকে ৬৫ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল প্লাজা ৮৯ মিনিট বন্ধ থাকার কারণে মহাসড়কে থেমে থেমে এই যানজট- বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঈদে ঘরমুখো মানুষ। মহাসড়কে পশুবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী বাসের সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে গেছে।