কূপ খনন করা হয় পানির জন্য। পানি মানুষ, উদ্ভিদ ও অন্যান্য প্রাণীর জীবন বাঁচায়। অনেক গল্প কাহিনিতে আমরা শুনে থাকি জাদু দিয়ে সব কিছু পাথর করে দেয়ার কথা। তবে এমন একটি কূপ রয়েছে, যার পানিতে বাস্তবেই সব কিছু পাথর হয়ে যায়।

দেখে মনে হবে, কূপের পানিতে রূপকথার গল্পের কোনো চরিত্র নেমে এসেছে। সত্যি অবাক করা দৃশ্য! মানুষ বা যাদুর কাঠির ছোঁয়ায় না, কূপের পানির ছোঁয়ায় সবকিছু পাথর হয়ে যাচ্ছে! যা আমরা সব সময় রূপকথার গল্পেই শুনে এসেছি। বাস্তবে দেখা এমন কূপ আমাদের বেশ অদ্ভুত রকমের অনুভূতি দেয়।

মাদার শিপটন গুহা

মাদার শিপটন গুহা

ইংল্যান্ডের নেয়ার্সবরো টাউনে রয়েছে এমন রহস্যময় একটি কূপ। নাম ‘মাদার শিপটন গুহা’ যার পানি সব কিছুকে পাথর করে দেয়। আশ্চর্য এ ক্ষমতার জন্য বিশ্বজুড়ে পরিচিত এই কূপ।

এর মধ্যে গাছের পাতা, কাঠের টুকরো পড়ার কিছুক্ষণ পরেই জমে পাথর হয়ে যায়। এর থেকেই ছড়িয়েছে আতঙ্ক। ভয়ে অনেকেই কূপের ধারে-কাছে যেতে চান না। যদি একবার কেউ পড়ে যায় তাহলে আর রক্ষা নেই।

মাদার শিপটন গুহা

মাদার শিপটন গুহা

কৌতূহলী অনেকে উপর থেকে টুপি, জুতা রুমালসহ বিভিন্ন বস্তু কূপের পানিতে ফেলেছেন। কিছুক্ষণ পরেই সে সব পাথর হয়ে গেছে। কেউ দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছিলেন টেডি বিয়ার, সাইকেল, কেটলি। দড়ির কিছু অংশসহ ঝুলন্ত বস্তুগুলো সম্পূর্ণ পাথরে পরিণত হয়েছে।

কূপের ধারে এখনো ঝুলছে অষ্টাদশ শতকের টুপি, চেইন। দুইশো থেকে দুইশো পঞ্চাশ বছর ধরে একই রকম অবস্থা চলছে। কৌতূহলী অনেকে সাহস নিয়ে ভয়ংকর এই কূপের ধারে যান। কোনোরকমে কূপের গা দিয়ে কিছু একটা ঝুলিয়ে দেন। পানির স্পর্শ লাগতেই ওই সব বস্তু পাথর হতে থাকে।

মাদার শিপটন গুহা

মাদার শিপটন গুহা

ধারণা করা হচ্ছে, এই কূপের পানিতে এমন কিছু রয়েছে যার রাসায়নিক মাত্রা সবকিছু পাথরে পরিণত করে দেয়।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে।